ওয়েবসাইট নিয়ে নতুন কাজ শুরু করতে চাচ্ছি। কিভাবে শুরু করবো? পার্ট – ৩

হ্যালো প্রিয় ভিজিটর গণ, আশা করি সকলে অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে ওয়েব সাইট নিয়ে নতুন কাজ শুরু করবো, কিন্তু প্রথমে কী করবো এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

একটি বিষয়কে বিস্তারিত ভাবে লিখে এক পোস্ট এর মাধ্যমে বলা প্রায় অসম্ভব। আর যদি তা হয় নতুন দে এর জন্য ব্লগিং তাহলে তো কথাই নেই। এক পোস্ট এ সব বিস্তারিত বোঝাতে গেলে একজন রাইটার এর প্রায় হাত ভেঙে যাওয়ার মতো অবস্থা হয় 😅। তবে এক্সপার্ট দের খুব বেশি সমস্যা হয় না বলেই আমার মনে হয়। 🤔

তবে আমি যেহেতু আর প্রো লেভেলের রাইটার না তাই এক পোস্ট এ বিস্তারিত সব কিছু বোঝানো টা আমার কাছে অসম্ভব। তো এর জন্য এই পোস্ট এর টপিক টা কে আমি কয়েকটা পার্ট আকারে রূপ দিয়েছি। আর এর আগে আমাদের এই সাইটে এই টপিক এর উপর প্রথম ২ পার্ট পোস্ট করা আছে। আপনার দরকার হলে সেখান থেকে পড়ে নিতে পারেন। (নিচে আমি লিংক দিয়ে দিচ্ছি)।

আরো পড়ুনঃ
১. ওয়েবসাইট নিয়ে নতুন কাজ শুরু করতে চাচ্ছি। কিভাবে শুরু করবো? পার্ট – ১

২. ওয়েবসাইট নিয়ে নতুন কাজ শুরু করতে চাচ্ছি। কিভাবে শুরু করবো? পার্ট – ২

আর আজকে এই টপিক এর ৩য় পার্ট। আমি জানি না কত টুকু লিখতে পারবো এই পার্টে। তবে চেষ্টা করবো আপনারা যাতে কিছু শিখতে পারেন এমন করে লিখার। তো চলুন আজকের টপিক স্টার্ট করি বেশি বকবক করবো না 😶।

সর্বশেষ এই টপিক এর পোস্ট এ আমি আপনাদের কে বলেছিলাম যে, আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের ওয়েব সাইট কে গুগলে সাবমিট করা এবং ওয়েব সাইট এর সাইট ম্যাপ কে গুগল এ সাবমিট করা শিখাবো। তো সেই টপিক দিয়েই চলুন শুরু করি।

ওয়েবসাইট গুগলে সাবমিট করার নিয়ম

কয়েকটা ৩য় পার্টি ওয়েব সাইট থেকে ওয়েব সাইট কে গুগলে সাবমিট করা যায়। তবে আমরা এত কষ্ট করে টাকা দিয়ে সাইট বানিয়ে কেন ৩য় পার্টি ওয়েব সাইট কে ব্যবহার করবো? যেখানে গুগল নিজেই আমাদের কে গুগলে ওয়েব সাইট কে সাবমিট করার সিস্টেম দিচ্ছে তাও ফ্রি তে তখন তো আর অন্য ৩য় পার্টি ওয়েব সাইট ব্যবহার করার কোনো প্রশ্নই ওঠে না।

তবে একটা প্রশ্ন আছে, আমরা অন্যান্য সব সার্চ ইঞ্জিন বাদ দিয়ে কেন শুধু গুগলে সাইট কে সাবমিট করবো? তো এর উত্তর একটাই, অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিন আপনাকে আয় করার সুযোগ দিবে না তবে গুগল আপনাকে সেই সুযোগ দিবে। আর সেকেন্ডলি হলো শুধু গুগলে না আপনি চাইলে সব সার্চ ইঞ্জিন এই আপনার সাইট কে সাবমিট করতে পারবেন। এতে শুধু ভিজিটর বাড়তে পারে ( আবার নাও পারে। কারণ এখন গুগল ছাড়া অন্য সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহারকারী এর সংখ্যা খুব কম)।

তো চলুন দেখে নিই আমরা কিভাবে গুগল সার্চ কনসোল এর মাধ্যমে খুব সহজেই গুগলে নিজের সাইট কে সাবমিট করা যায়।

গুগল সার্চ কনসোল এর মাধ্যমে গুগলে ওয়েবসাইট সাবমিট করার নিয়মঃ

১. প্রথমেই আপনারা গুগলের Search Console এ চলে যান।

২. এবার একদম উপরের ডান দিকে তাকান। সেখান থেকে ইউজার বাটনে ক্লিক করে আপনার ইমেইল দিয়ে সেখানে লগ ইন করে নিন।

৩. এবার সেখানে একটা টেক্সট বক্স পাবেন, সেখানে আপনার ডোমেইন দিয়ে দিবেন। যেমনঃ http://tempnmail.com

[Note:এখানে অবশ্যই http:// বা https:// ব্যবহার করবেন।]

৪. এবার আপনাকে সেখানে বলে দিবে কিভাবে আপনি কিভাবে আপনার সাইট কে ভেরিফাই করবেন। তো সেগুলো মতো কাজ করলেই আপনার সাইট ভেরিফাই হয়ে যাবে এবং ২-৩ দিন এর মধ্যই সাইট গুগলে সাবমিট হয়ে যাবে।

ওয়েব সাইট এর সাইট ম্যাপ গুগলে সাবমিট করার নিয়ম

তো ওয়েব সাইট তো গুগলে সাবমিট হলো। এবার পালা সাইট ম্যাপ এর। এখন কথা হলো সাইট ম্যাপ কী? তো চলুন আগে সেটাই বুঝে নিই।

ধরুন, আপনি থাকেন রাজশাহী। এখন আপনি ঘুরতে এলেন ঢাকা তে। তো ঢাকা তো আর ছোট শহর না অনেক বড় শহর। সেখানে আপনি কিচ্ছু চিনেন না। আর সেখানে আপনার চেনা যানা ও কেউ নেই।

তো এই মূহুর্তে আপনি কি করবেন। কিছুই করার নেই। তবে আপনাকে যদি একটা ঢাকা শহরের ম্যাপ দেওয়া হয়! তাহলে কিন্তু আপনি খুব সহজেই সেই ঢাকা শহরের কোথায় কি আছে তা জানতে পারবেন। তাই না?

তো এখন আপনার যায়গায় গুগল, ঢাকা এর যায়গা গুগল সার্চ ইঞ্জিন আর ঢাকার ম্যাপ এর যায়গা আপনার ওয়েব সাইট এর ম্যাপ কে বসান তাহলেই সব কিছু একদম পানির মতো হয়ে যাবে। আশা করি বুঝতে পেরেছেন। মূল কথা হলো, আপনার সাইটের সাইট ম্যাপ আপনার সাইট সম্পর্কে গুগলকে জানাবে।

তো যেনে গেলাম সাইট ম্যাপ কী! তো আরেকটা সমস্যা সেটা হলো আমি তো সাইটে, সাইট ম্যাপ তৈরি করি নি। তাহলে কী করবো?

আরে ওয়েট করেন। নো চিন্তা ডু ফুর্তি 😁। আমি এই টপিক এর ২য় পার্ট এ আপনাদের কে একদম শেষের দিকে প্লাগিন ইন্সটল এর জন্য কয়েকটা প্লাগিন ইন্সটল করতে বলছিলাম। সেখানে একটা ছিলো Seo প্লাগিন। তো সেখানে আমি ৩ টা seo plugin কে সাজেস্ট করেছিলাম, Yoast Seo, Rank Math, All in one seo. এই ৩ টা। তো এখান থেকে সে কোনো একটা চুজ করতে পারেন।

তো যাই হোক, এখান থেকে যদি আপনি একটিও প্লাগিন ইন্সটল করে থাকেন তাহলে আপনার ওয়েব সাইট এ সাইট ম্যাপ অলরেডি অটোমেটিক রেডি হয়ে গেছে। এবার পালা শুধু তাকে সাবমিট করার গুগলে।

১. তো এর জন্য, প্রথমে যে ইমেইল দিয়ে ওয়েব সাইট কে গুগলে সাবমিট করছিলেন সেই সেইম মেইল দিয়ে সার্চ কন্সোল এ আবার লগ ইন করুন। (যদি লগ আউট হয়ে যায় তো৷ লগ আউট হওয়ার চাঞ্চ অনেক কম)

২. তো এবার একেবারে উপরের বাম দিকে একটা মেনু বাটন পাবেন। ক্লিক করে দিন।

৩. সেখানে দেখবেন সার্চ বক্সের নিচে আপনার সাবমিট করা সাইট শো করছে। সেটায় ক্লিক করে দিন।

৪. আবারো মেনু বাটনে চাপ দিন।

৫. এবার সেখান থেকে সাইট ম্যাপ অপশন পাবেন। সেখানে ক্লিক করে দিন।

৬. এবার একটা পেজ পাবেন সেখানে টেক্সট বক্স পাবেন। সেখানে sitemap.xml এটা লিখে দিয়ে সাবমিট করবেন। এই লেখা টা যেনো ভুল না হয়। তার জন্য কপি করে নিতে পারেন। নিচের বক্স থেকে।

sitemap.xml

ব্যস সব কাজ শেষ। সাইট ম্যাপ ও গুগলে সাবমিট হয়ে গেলো। কত সহজ ছিলো তাই না?

তো আজকে আর নয়। অনেকটা লিখছি হাত ব্যাথা করতেছে। তো যাই হোক, আর আর্টিকেল এ ইমোজি ব্যবহার করেছে যাস্ট এক্সপ্রেশন বুঝানোর জন্য। নেগেটিভলি কেউ নিয়েন না। আর যদি পোস্ট এর কোথাও বুঝতে সমস্যা হয় তো কমেন্ট করে জানাবেন অবশ্যই। আর যদি ওয়েবসাইট নিয়ে কোনো সাহায্য, মতামত কিংবা বানিয়ে নিতে চান তাহলে আমার সাথে ফেসবুকে যোগাযোগ করতে পারেন। যারা একদমই ওয়েব ডিজাইন পারেন তারা আমার সাথে ফেসবুকে যোগাযোগ করবেন।

তো বন্ধুরা আশা করি এই পোস্ট টি আপনাদের কাছে অনেক ভালো লেগেছে। ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই কিন্তু কমেন্ট করে জানাবেন। আর এরকম সব পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই ওয়েব সাইট টি। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

One Comment on “ওয়েবসাইট নিয়ে নতুন কাজ শুরু করতে চাচ্ছি। কিভাবে শুরু করবো? পার্ট – ৩”

Leave a Reply

Your email address will not be published.